শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

স্টাফ রিপোর্টার:

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলায় রিনা আক্তার (৩০) নামে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে মাদকাসক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২ আগষ্ট) রাতে উপজেলার লোহাজুরী ইউনিয়নের দক্ষিণ ঝিড়ারপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রিনা আক্তার ঝিড়ারপাড় গ্রামের মহরম আলীর মেয়ে। তিনি তিন সন্তানের জননী। এদিকে জসিম উদ্দিন (৩২) ওই গ্রামের দুখু মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জসিম উদ্দিন এলাকায় মাদকসেবী ও বিক্রেতা হিসেবে পরিচিত। কয়েক মাস আগে প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই সে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। সপ্তাহখানেক আগে নিহত রিনা আক্তার স্বামী জসিম উদ্দিনকে না জানিয়ে তাদের তিন সন্তানকে বাড়িতে রেখে কুলিয়ারচর উপজেলার আগরপুর চলে যায়। এবং জাকির হোসেন নামের এক ব্যক্তির সহযোগিতায় দেহব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) সন্ধ্যায় রিনা বাড়িতে ফিরে এলে এ বিষয়ে স্বামী জসিম উদ্দিনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। জসিম একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে লাঠি দিয়ে রিনাকে পেঠাতে থাকে। লাঠির আঘাতে রিনা মাটিতে ঢলে পড়ে। রাত ১১টার দিকে গুরুতর আহতাবস্থায় জসিম উদ্দিন রিনাকে সিএনজিচালিত অটোরিকশা করে চিকিৎসার উদ্দেশ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল থেকে রিনার স্বামী জসিম উদ্দিনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় রাতেই নিহত রিনার পিতা মহরম আলী বাদী হয়ে জসিম উদ্দিনকে আসামি করে কটিয়াদী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

কটিয়াদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম শাহাদাত হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রায়ই মাদকাসক্ত স্বামী জসিম উদ্দিন তার স্ত্রী রিনাকে নির্যাতন করতেন। মঙ্গলবার রাতে সে তার স্ত্রীকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে নিজেই লাশ হাসপাতালে নিয়ে আসে। আমরা তাকে হাসপাতাল থেকে আটক করেছি। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ মর্গে ও ঘাতক জসিম উদ্দিনকে আজ বুধবার আদালতে সোপর্দ করা হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana