রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৫:০৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কটিয়াদীতে চোর-ডাকাত ও মাদকসেবীদের প্রতিরোধে রাত জেগে এলাকাবাসীর পাহারা

কটিয়াদীতে চোর-ডাকাত ও মাদকসেবীদের প্রতিরোধে রাত জেগে এলাকাবাসীর পাহারা

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে চোর, ডাকাত ও মাদবসেবীদের প্রতিরোধে রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে এলাকাবাসী। ছবি: একুশে টাইমস্

দর্পন ঘোষ (কটিয়াদী) কিশোরগঞ্জ  প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে চোর-ডাকাত , মাদক সেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের প্রতিরোধে এলাকাবাসী রাত জেগে পালাক্রমে পাহারা দিচ্ছেন । তাদের সহযোগীতা করছেন কটিয়াদী থানা পুলিশ। এ ঘটনাটি ঘটছে কটিয়াদী পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়া মহল্লায় । গত ১ এপ্রিল শুক্রবার রাত থেকে এ পাহারা শুরু হয়েছে। গত মার্চ মাসে কটিয়াদী পশ্চিম পাড়া মহল্লায় বেশ কয়েকটি বাসা ও দোকানে চুরি সংঘটিত হয়। এর মধ্যে অনিত চক্রবর্তীর- রুপম ফাস্ট ফুড এন্ড কনফেশনারী , ডা. স্নেহাংসু সাহা রায়, কানু সাহা, দর্পন ঘোষ, কটিয়াদী পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক প্রদীপ সরকারের বাসায়। এ ছাড়াও এলাকায় নিয়মিত রাতে পশ্চিম পাড়া মহল্লার শিবমন্দিরের পাশে, সমর সাহার বাড়ি সংলগ্ন টিলা, দিলীপ বিড়ি ফ্যাক্টরি সংলগ্ন পুকুর পাড়, রাঁধানাথ সাহার বাড়ি সংলগ্ন পুকুর পাড় , মেহগনি বাগান ও পাট মহলে সন্ধ্যার পর থেকে সাড়া রাত মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারীদের জমজমাট আড্ডা হয় । পশ্চিম পাড়া মহল্লাটি সীমান্তে পাশ্ববর্তী মনোহরদী উপজেলা ও কিশোরগঞ্জ- নরসিংদী জেলায় যাতায়াতের জন্য মহল্লার মাঝ দিয়ে রাস্তা যাওয়ায় রাতের অন্ধকারে বিভিন্ন এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা এ এলাকায় জড়ো হয় । এলাকাবাসীর ধারণা মাদকসেবীরাই চুরি ডাকাতির সাথে জড়িত। মহল্লায় চুরি বৃদ্ধি পেলে মার্চ মাসের শেষের দিকে এলাকার লোকজন বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করেন । এরই প্রেক্ষিতে কটিয়াদী পৌর সভার ২ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়া মহল্লার লোকনাথ মন্দিরে পৌর কাউন্সিলর মো. হাবিবুর রহমান বাচ্চুর সভাপতিত্বে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয় । সভায় বক্তব্য রাখেন কটিয়াদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম শাহাদত হোসেন শাহীন, পৌর মেয়র শওকত ওসমান , জর্দা ব্যবসায়ী স্বপন সাহা, সার ব্যবসায়ী শীতল সাহা, ডা. প্রদীপ সাহা, মধুসূদন সাহা, আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ। মতবিনিময় সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতিরাতে ৪ টি গ্রুপে ৬ জন করে মোট ২৪ জন করে পাহাড়া দেন । রাত ১১ টার সময় রূপম ফাস্টফুড এন্ড কনফেশনারী সামনে মহল্লার লোকজন উপস্থিত হলে পৌর কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান বাচ্চু ও অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য সহকারী স্বপন কুমার ঘোষের নেতৃত্বে গ্রুপ ভাগ করে দেয়া হয় । পাহারায় নিয়োজিত সকলের হাতে থাকে লাইট ও বাঁশি । রাত ১১ টা থেকে ফজরের নামাজের আজান পর্যন্ত তাহারা পাহারা দেন। পাহারাদারদের গ্রুপ লিডার অবসরপ্রাপ্ত রেলওয়ে থানা পুলিশ ক্ষিতীশ কুমার সাহা । কটিয়াদী পৌরসভা ২ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়া মহল্লার কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান বাচ্চু জানান, পশ্চিম পাড়া মহল্লায় বেশ কয়টি বাড়িতে চুরি সংঘটিত হয় । চোর, মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের প্রতিরোধ করার জন্য আমরা পুলিশ প্রশাসনের সাথে মতবিনিময় করে প্রতি রাতে পাহারা দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি । এখন এলাকায় কোন চুরি হচ্ছে না এবং মাদক মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে বলে আমাদের ধারণা । কটিয়াদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম শাহাদাত হোসেন শাহীন জানান , পৌরসভার পশ্চিম পাড়া মহল্লায় কয়েকটি বাসায় চুরি সংঘটিত হয় । এ ঘটনার পর চোর, , মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ীদের প্রতিরোধে পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে রাতে পাহারা দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করি । পাহারাদারদের জন্য থানার পক্ষ থেকে লাইট ও বাঁশি প্রদান করা হয়েছে। এখন আর এলাকায় চুরি হচ্ছে না , মাদক ব্যবসায়ী এবং মাদকসেবীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ ও জনগণ একসাথে কাজ করা ইহা একটি অনন্য দৃষ্টান্ত ।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana