মঙ্গলবার, ০৫ Jul ২০২২, ০১:২৬ অপরাহ্ন

৪০ মিনিট ধরে কান্না করেও বিমানে উঠতে পারলেন না ঋতুপর্ণা

৪০ মিনিট ধরে কান্না করেও বিমানে উঠতে পারলেন না ঋতুপর্ণা

বিমানে উঠতে দেওয়া হয় এয়ারলাইন কর্মীদের কাছে করজোড় অনুনয় করলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ৪০ মিনিট ধরে কাঁদলেন।

ঋতুপর্ণাকে বিমানে ওঠার অনুমতি না দেওয়ার কারণ ১৭ মিনিট দেরি করে হাজির হয়েছিলেন তিনি। বোর্ডিংয়ের সময় ভোর ৪টা ৫৫ মিনিট ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত পৌঁছেছেন ৫টা ১২ মিনিটে।

এ বিষয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন ঋতুপর্ণা।

তিনি লিখেছেন, আমদাবাদের ফ্লাইট ধরার জন্য কলকাতা এয়ারপোর্টে যাত্রীদের ১৯ নম্বর গেট দিয়ে বোর্ডিংয়ের সময় দেওয়া হয়েছিল ৪টা ৫৫ মিনিটে। কিন্তু তিনি সেখানে পৌঁছান ৫টা ১০ থেকে ৫টা ১২ মিনিটের মধ্যে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে জানানো হয়, বোর্ডিং গেট অনেক ক্ষণ আগেই বন্ধ হয়ে গেছে।

ওই এয়ারলাইন্সে ভ্রমণ অভিজ্ঞতা কথা বলে এ নায়িকা লিখেছেন ‘এই এয়ারলাইন্সে কমপক্ষে ৭-৮ বার ভ্রমণ করেছেন। এমনকী এয়ারলাইন্সের কর্মীদের অনুরোধে তাদের সঙ্গে ছবিও তুলেছেন। কোনো ধরনের দোষ ছাড়াই তাকে বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেন ঋতুপর্ণা। বিমান কর্তৃপক্ষ বলছে তারা আমার নাম ঘোষণা করেছে ও ফোন করেছে। কিন্তু আমি কোনো কল পাইনি। বিমান কর্তৃপক্ষকে আমি বার বার অনুরোধ করেছি। সঠিক সময়ে শুটিং না গেলে প্রযোজকের সমস্যা হবে। শুটং বন্ধ হয়ে যাবে। কিন্তু তারা আমার কোনো কথা কানে তোলেননি।’

‘টানা ৪০ মিনিট তার সঙ্গে কথা হয় কর্মীদের। এক পর্যায়ে কাঁদতে কাঁদতে তাদের অনুরোধ করেন বিমানে উঠতে দিতে। কিন্তু তার সমস্যা কেউ বুঝতেই চাননি। অথচ তিনি দেখতে পান বিমানটি তখনও দাঁড়িয়ে। বিমানে ওঠার সিঁড়িও খুলে নেওয়া হয়নি। মাত্র ৫০ পা দূরে বিমান দাঁড়িয়ে। আমি দেখতে পাচ্ছি। কিন্তু যেতে পারছি না। অথচ আমার বোর্ডিং পাস থেকে শুরু করে সিট নম্বর সব আছে।’

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে খবর, আমদাবাদ একটি ছবির শুটিংয়ে যোগ দেওয়ার কথা ছিল ঋতুপর্ণার। কিন্তু বিমান সংস্থা তাকে নির্দিষ্ট ফ্লাইটে উঠতে না দেওয়ায় তার আর শুটিং করা হয়নি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana