মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৮:১২ অপরাহ্ন

‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ কবিতা থেকে গান

‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ কবিতা থেকে গান

একুশে ডেস্ক:

’৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান থেকে একটি কবিতা মুক্তিগামী ছাত্র জনতার মুখে মুখে উচ্চারিত হতো, যা আমাদের মুক্তিযুদ্ধে প্রেরণা ও উদ্দীপনা জুগীয়েছিল। কবিতার প্রথম পংক্তিটি ছিল ‘এখন যৌব যার, যুদ্ধে যাবার শ্রেষ্ঠসময় তার।…’

কবিতার রাজকুমার ও জীবন্ত কিংবদন্তি কবি হেলাল হাফিজ রচিত সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে যাবার প্রথম আহ্বানযুক্ত ‘নিষিদ্ধ সম্পাদকীয়’ শিরোনামে ‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ কবিতা দীর্ঘ ৪৪ বছর পর গানে রুপান্তর করা হয়েছে।

কবিতার রাজকুমার ও জীবন্ত কিংবদন্তি কবি হেলাল হাফিজ রচিত সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে যাবার প্রথম আহ্বানযুক্ত ‘নিষিদ্ধ সম্পাদকীয়’ শিরোনামে ‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ কবিতা দীর্ঘ ৪৪ বছর পর গানে রুপান্তর করা হয়েছে। সারা পৃথিবী কাঁপানো উচ্চকণ্ঠের এ কবিতাটি গানে রুপান্তর ও গাওয়ার জন্য অনুমতি পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মশিল্পী কৌশলী ইমা। তরুন প্রজন্মের এ শিল্পী ইতোমধ্যে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ও সমকালীন গান গেয়ে উত্তর আমেরিকায় বেশ সাড়া ফেলেছেন। ‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ কৌশলী ইমার কণ্ঠে গাওয়া এ গান ইতোমধ্যেই নিউইয়র্কের একটি স্টুডিওতে রেকর্ডিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে। ঊনসত্তর-এর গণঅভ্যুত্থান, একাত্তরের উত্তাল অগ্নিঝরা মার্চ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ঐতিহাসিক বিশেষ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও সংযুক্ত করে হাই ডেফিনেশন (এইচডি) ভার্সনে ভিডিও সম্পাদনার কাজ চলছে। গানের এ ভিডিওতে আন্তর্জাতিকতা অর্থাৎ ভিন্ন ভাষাভাষীদের গুরুত্বের কথা চিন্তা করে ইংরেজিতে সাব-টাইটেলও থাকছে। কবি হেলাল হাফিজের এ কবিতাটি গানে রূপান্তরের জন্য প্রস্তাবনা, পরিকল্পনা এবং কবি কর্তৃক অনুমোদন সংগ্রহ করেন যুক্তরাষ্ট্রস্থ প্রবাসী লেখক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক ওয়াহিদ। গানটির সঙ্গীতায়োজন করেন নিউইয়র্কের বিশিষ্ট সঙ্গীত পরিচালক নাদিম আহমেদ। সুর করেন কবি, লেখক ও সাংবাদিক সাবেদ সাথী। কবিতা আবৃত্তিতে কণ্ঠ দেন নিউইয়র্ক প্রবাসী বিশিষ্ট নাট্যাভিনেত্রী লুৎফুন নাহার লতা ও আবৃত্তিকার মিথুন আহমেদ। এ গান প্রসঙ্গে শিল্পী কৌশলী ইমা এ প্রতিবেদক জানান, কিংবদন্তি কবি হেলাল হাফিজের শিহরণ জাগা উচ্চকণ্ঠের ‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ এ কবিতাটি গান গাওয়ার জন্য তার জীবনে এটি একটি স্মরণীয় ঘটনাতো বটেই-গানটি তার শিল্পী জীবনে একটি মাইল ফলক হয়ে থাকবে। কবিতাটির ঐতিহাসিক গুরুত্ব, তারুণ্যের প্রতিবাদী উচ্চকণ্ঠ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার আবেগ সবকিছু চিন্তা করেই সেভাবে গাওয়া হয়েছে। যাতে এই শিহরণ জাগা গানটি শুনলে তারুণ্যের হৃদয় আন্দোলিত হয়ে উঠে এবং নতুন প্রজন্ম আবারও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হয়। ‘এখন যৌবন যার যুদ্ধে যাবার তার শ্রেষ্ঠ সময়’ কবিতা থেকে এ গান বাংলা সঙ্গীত পিপাসুদের মনের খোরাক মেটাবে বলে কৌশলী ইমা আশা করছেন। উল্লেখ্য, শিল্পী কৌশলী ইমা সমাজের নানা অনিয়ম-দুর্নীতি, অন্যায়-অবিচার ও কুসংস্কারকে গানের ভাষায় দর্শক-শ্রোতাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেন। মুক্তিযুদ্ধ, রাজনীতি, দেশপ্রেম, মানবপ্রেম ও আধ্যাত্মিক বিষয় নিয়ে তার গাওয়া গান সর্ব মহলে প্রশংসিত। তার গাওয়া গান শুনে দর্শক-শ্রোতার হৃদয় ছুঁয়ে যায়। সমসাময়িক বিষয় এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যু ভিত্তিক তার বৈচিত্র্যময় গান ইতোমধ্যে দেশ-বিদেশে বেশ সুনাম কুড়িয়েছে। দেশে অবস্থানকালে গান গেয়েছেন বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনে। শিল্পী কৌশলী ইমা ঢাকা সরকারি সঙ্গীত মহাবিদ্যালয় থেকে লোকসঙ্গীতে স্নাতক এবং লালমাটিয়া মহিলা কলেজ থেকে বাংলা সাহিত্যে মাস্টার ডিগ্রি লাভ করেন। তার বৈচিত্র্যময় গানের সংকলন নিয়ে আমলনামা ডটকম, মাটির মানুষ ও জেন্টেলম্যান নামে ৩টি অ্যালবাম বের হয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana