মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:২৭ পূর্বাহ্ন

বিয়ে করলেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় নেতা সাদ রিজভী

বিয়ে করলেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় নেতা সাদ রিজভী

একুশে ডেস্ক:

তেহরিক-ই লাব্বাইক পাকিস্তান পার্টির (টিএলপি) শীর্ষ নেতা সাদ হুসেইন রিজভী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বৃহস্পতিবার তিনি পাঞ্জাবের উত্তরাঞ্চলীয় অটক শহরে গাঁটছাড়া বাধেন।
পাকিস্তানের জনপ্রিয় গণমাধ্যম জিও টেলিভিশন এই খবর প্রকাশ করেছে।  খবরে বলা হয়, অটক জেলা শহরের নিকা কালান জেলায় অভ্যন্তরীণভাবে টিএলপি প্রধান বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বিয়ের অনুষ্ঠানে মুফতি মুনিব উর রহমানসহ সাদ রিজভির পরিবারের সদস্য এবং আত্মীয়-স্বজন উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে তেহরিক-ই লাব্বাইক পার্টির প্রধান বিবাহের উদ্দেশ্যে নিকা কালান শহরে রওনা দেন। সাদ রিজভীর বিয়ে পরবর্তী ভোজে দলের কর্মী এবং  নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি লাহোরে এই ভোজ (ওয়ালিমা) অনুষ্ঠিত  হবে।

দলীয় সূত্রের বরাতে খবরে বলা হয়েছে, শনিবার পাকিস্তানের মিনার-ই পাকিস্তান সাবজাজার মাঠে (ওয়ালিমা) অনুষ্ঠিত হবে। কর্তৃপক্ষ অনুষ্ঠানের অনুমতি প্রদান করেছে।

২০২০ সালের ২২ নভেম্বর রিজভীর বিয়ের কথা ছিল। কিন্তু বিয়ের মাত্র দুদিন আগে তার বাবা তেহরিক-ই লাব্বাইক পার্টির সাবেক প্রধান খাদিম হুসেইন রিজভী মারা যান। এ  কারণে বিয়ে পিছিয়ে যায়। দলীয় পরিবারের কারও সঙ্গে  টিএলফি প্রধান সাদ রিজভীর বাগদান করা ছিল।

তেহরিক-ই লাব্বাইক পাকিস্তানের জনপ্রিয় একইসঙ্গে সমালোচিত ইসলামিক দল।  ২০১৫ সালে টিএলপি প্রতিষ্ঠিত হয়। এর প্রতিষ্ঠাতা খাদিম হুসাইন রিজভি। এই সংগঠনটি পাকিস্তানে ধর্মের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিলে শাস্তি (ব্লাসফেমি ) আইনের সমর্থক। সংগঠন প্রতিষ্ঠান পর খাদিম ঘোষণা দিয়েছিলেন, পৃথিবীর বুক থেকে নেদারল্যান্ডসকে মুছে দেওয়া হবে। কারণ, মহানবী হযরত মুহাম্মকে (সা.) নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র আঁকার প্রতিযোগিতা আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছিল নেদারল্যান্ডসের এক রাজনীতিক। এছাড়া গত বছর ফ্রান্সের সঙ্গে পাকিস্তানের কূটনীতিক সম্পর্ক বন্ধের দাবিতেও টিএলপি ব্যাপক বিক্ষোভ করে। বিক্ষোভে বেশ কয়েজন পুলিশ সদস্য নিহত হন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana