শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
চুরি গেল ৫৮ ফুট ব্রিজ, তাজ্জব পুলিশ

চুরি গেল ৫৮ ফুট ব্রিজ, তাজ্জব পুলিশ

পুকুর চুরির গল্প তো প্রায় সবাই জানেন, কিন্তু তাই বলে আস্ত ব্রিজ চুরি! তাও ৫৮ ফুট লম্বা একটা ব্রিজ! না, প্রতিদিন এমন ঘটনা ঘটে না। আর এমন ঘটনা বাস্তবে ঘটলে তা বিশ্বাস করা একটু কঠিন বৈকি।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৫৮ ফুট লম্বা পলিমার-ভিত্তিক ওই ব্রিজ ওহিও’র ইস্ট আর্কন এলাকার নালার পাশে রাখা ছিল। কিন্তু চলতি বছরের ৩ নভেম্বর স্থানীয়রা আবিষ্কার করেন ব্রিজের ডেক বোর্ডগুলো সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এর সপ্তাহখানেক পর পুরো ব্রিজই উধাও হয়ে যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০০ সালের প্রথম দিকে ব্রিজটিকে ওই নালা থেকে খুলে অন্যকাজে ব্যবহারের জন্য পাশের জমিতে রাখা হয়। দীর্ঘদিন সেখানে পড়ে ছিল ব্রিজটি। এরপর ব্রিজটির উপর চোরদের নজর পড়ে।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন মাঠেই পড়ে থাকায় ব্রিজটির চারপাশে ঝোপঝাড় জন্মে গিয়েছিল। চোরেরা প্রথমে সেই ঝোপ পরিষ্কার করেন। তারপর ধাপে ধাপে ব্রিজের অংশবিশেষ চুরি করতে থাকে। এর জন্য তাদের রীতিমতো কসরতও করতে হয়েছে। কারণ অতবড় একটা ব্রিজকে তো আর গায়েব করে দেওয়া চাট্টিখানি কথা নয়।

ধারণা করা হচ্ছে, অনেক সময় নিয়ে ধীরে ধীরে ব্রিজটিকে টুকরো টুকরো করতে হয়েছে। এরপর সেটি চুরি করেছে তারা।

তবে এতো বড় একটা ব্রিজ চুরি করতে তো আর কম সময় লাগেনি। তাই চুরির বিষয়টি স্থানীয়দের কারো চোখে না পড়ায় রীতিমতো তাজ্জব হয়ে গেছেন স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা মাইক মিলার। ২২ বছরের কর্মজীবনে এমন অদ্ভূত ঘটনার মুখোমুখি হননি বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া ব্রিজ তৈরির মূল উপাদার পলিমার বিক্রি করা কিংবা পুনর্ব্যবহার করা যায় না। তাই চোরেরা এই ব্রিজ নিয়ে কী করবেন সেটা ভেবেও জেরবার হচ্ছেন মাইক।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana