সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন

অতিথি পাখিদের প্রতি নিষ্ঠুরতা নয়

অতিথি পাখিদের প্রতি নিষ্ঠুরতা নয়

একুশে ডেস্ক:
দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে শীতের মৌসুমে অতিথি পাখিদের আনাগোনা দেখা যায়। জীবন বাঁচাতে এসব পাখি নানান দেশে অতিথি হয়ে আগমন করে। খাদ্য সংকট ও তীব্র শীতের কারণে নিজ দেশ ত্যাগ করতে বাধ্য হয় তারা। বাংলাদেশে খাল-বিল, হাওর অঞ্চলেও আগমন করে এসব পাখি। কিন্তু এক শ্রেণির অসাধু মানুষ এসব পাখি শিকার করতে চায়, পাখি ধরার নানা ফাঁদ পেতে এদের ভয়ভীতি দেখায়। অথচ এটা খুবই অনুচিত কাজ।
জীবের প্রতি দয়া করলে আল্লাহ খুশি হন, এমন কথা কমবেশি সবারই জানা আছে। রাসুলুল্লাহ (সা.) শত্রুমিত্র ভেদাভেদ ভুলে অসহায় মানুষের প্রতি দয়া প্রদর্শন করেছেন। নবী (সা.)-এর দয়া ও দরদ থেকে বাদ পড়েনি সাধারণ কীটপতঙ্গ, পশুপাখি, জীবজন্তু এমনকি বৃক্ষরাজিও। হাদিসে এ সবের প্রতি দয়া প্রদর্শনের বহু দৃষ্টান্ত রয়েছে। তন্মধ্যে এই বিখ্যাত ঘটনাটি তো সবারই জানা-একদিন এক বালক পাখির বাসা থেকে দুটি ছানা নিয়ে যাচ্ছিল। মা পাখিটা ছানার শোকে পাগলপ্রায় হয়ে ওই বালকটির মাথার ওপর উড়াউড়ি করতে লাগল। এই দৃশ্য দেখে রাসুলুল্লাহ (সা.) বালকটিকে বললেন, ছানা দুটি বাসায় রেখে এসো। দেখছ না মা পাখিটি কেমন পাগল হয়ে তোমার মাথার ওপর উড়াউড়ি করছে, নিজের জীবনের মায়া পর্যন্ত নেই! রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর কথায় ওই বালক ছানা দুটিকে পাখির বাসায় রেখে এলো। ছানা দুটিকে পেয়ে মা পাখিটি বাচ্চা দুটিকে অনেক আদর-সোহাগ করল, তা দেখে রাসুলুল্লাহ (সা.) খুব খুশি হলেন। (মেশকাত)
অহেতুক পশুপাখির পেছনে লেগে থাকা, অযথা এগুলোকে শিকার করা ইসলামে নিন্দনীয়। রাসুল (সা.) ইরশাদ করেছেন, ‘তোমরা কোনো প্রাণীকে লক্ষ্যবস্তু বানিও না’ (মুসলিম : ১৯৫৭)। আরও বলেন, ‘এসব বাকশক্তিহীন প্রাণীর ব্যাপারে আল্লাহকে ভয় করো’ (আবু দাউদ : ২৫৪৮)। নবী (সা.) গর্তস্থ কীটপতঙ্গদের জীবন রক্ষার নিমিত্তে গর্তে পেশাব করতে নিষেধ করেছেন। কারণ গর্তে পিঁপড়া ও অন্যান্য কীটপতঙ্গ থাকে। তারা মারা যেতে পারে, কষ্ট পেতে পারে (আবু দাউদ : ২৯)। পশুপাখির প্রতি এমন দয়া-মায়ার প্রেক্ষিতেই নবী (সা.)-কে শুধু মানুষের নবী না বলে ‘রাহমাতুল্লিল আলামিন’ তথা ‘বিশ্ববাসীর জন্য রহমত’ অভিধায় ভূষিত করা হযেছে।
হাদিসে আরও বলা হয়েছে, দুনিয়ার বুকে যদি কোনো পশু অন্য পশুকে আঘাত করে আর আঘাতপ্রাপ্ত পশুটি প্রতিশোধ গ্রহণের সুযোগ না পায় তা হলে দুটো পশুকেই হাশরের ময়দানে উপস্থিত করানো হবে এবং অত্যাচারিত পশুটিকে প্রতিশোধ নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হবে। বাদ যাবে না অত্যাচারী মানুষরাও। একবার ভাবুন, পশুরা প্রতিশোধ নিচ্ছে মানুষের ওপর, তখন কী ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টি হবে তা সহজেই বুঝা যায়। হাদিসে কুদসিতে এসেছে-আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘তুমি যদি কারও ওপর দয়া করো তা হলে তোমার ওপরও দয়া করা হবে।’ (মুসলিম : ২৩১৮)
Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana