মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

কাঞ্চন-জায়েদের পরিকল্পনা

কাঞ্চন-জায়েদের পরিকল্পনা

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হয়েছেন জায়েদ খান। আগামী দিনের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন তারা দুজন।
সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার মানসিকতা তৈরি করতে হবে : ইলিয়াস কাঞ্চন
এবারের নির্বাচনে যারা প্রার্থী হয়েছেন তাদেরকে ধন্যবাদ। বিশেষ করে এদেশের মানুষ আমাকে যারা ভালোবাসে তাদেরকে আমার হৃদয়ের অন্তস্তল থেকে ধন্যবাদ জানাই। এই ঋণ কখনও শোধ করতে পারব না। যতদিন জীবন থাকবে এদেশের জন্য, ইন্ডাস্ট্রির জন্য, শিল্পের জন্য থাকব ইনশা আল্লাহ। আশা করি সবাই আমাকে সাহায্য-সহযোগিতা করবেন। আমরা যে উপদেষ্টা কমিটি করব সেখানে মিশা সওদাগরকে রাখব। কারণ তার অনেক অভিজ্ঞতা আছে সেটাকে কাজে লাগবে। আসলেই ভালোবাসার ওপরে কোনো কিছু নেই।
ক্ষমতা হস্তান্তরের পর সবার সঙ্গে বসে কথা বলতে হবে। দুই প্যানেলেরই নির্বাচনি ইশতেহার ছিল। শুধু যে আমারটা বলব তা হলে তো হবে না। আমাকেও ছাড় দিতে হবে, তাদেরটাও গ্রহণ করতে হবে। যেটা সুন্দর সেই সুন্দরটাকে উভয় পক্ষে গ্রহণ করে আমাদের আগাতে হবে।
দুই প্যানেলের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার একটা মানসিকতা তৈরি করতে হবে। তারপরই আমরা চিন্তা করব কোন কাজটা আগে করা যেতে পারে। আর যদি পুরো প্যানেল আসত তা হলে আমরা বলতে পারতাম।
এবার বেশি বেশি সিনেমা তৈরি করার চেষ্টা করব : জায়েদ খান
নির্বাচনকে ঘিরে আমি ব্যক্তিগত আক্রমণের শিকার হয়েছি। তবে বিজয়ের পর সেসব নিয়ে আমার কোনো কষ্ট নেই। কোনো কিছুই মনে হচ্ছে না। বরং সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে মুগ্ধ হয়েছি। শিল্পীদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা, তারা আমাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছেন। আমার সভাপতি মিশা সওদাগর ভাই হেরে গেছেন। ভীষণভাবে তাকে মিস করছি। উনার সঙ্গে গত চার বছর কাজ করেছি। তিনি আমার অভিভাবক। তার সঙ্গে বোঝাপড়াও চমৎকার। তার জন্য ভীষণ মন খারাপ লাগছে। আমার প্যানেলে যারা নির্বাচিত হতে পারেননি, তাদের জন্যও খুব খারাপ লাগছে। তারা যদি বিজয়ী হতেন, তা হলে টিম হিসেবে আরও ভালো কাজ করতে পারতাম। কারণ আমাদের একটা পরিকল্পনা ছিল। ভালো কাজ করেছি বলেই টানা তৃতীয়বারের মতো জয়ী হয়েছি। আশা করছি, শিল্পীদের সম্মান রাখতে পারব। কাজ করতে গিয়ে কারও মনে কষ্ট দিয়ে থাকলে আমি ক্ষমা চাইছি। এবার আমি চেষ্টা করব বেশি বেশি সিনেমা তৈরি করার। সেদিকে বেশি মনোযোগ দেব এবং যে শিল্পীদের ঢাকা শহরে থাকার জায়গা নেই, তাদের বসবাসের জন্য ব্যবস্থা করব। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী নিপুণের জন্য শুভকামনা থাকল। সে প্রথমবার নির্বাচন করে ভালো করেছে। আশা করি, কাজের ক্ষেত্রে তার সহযোগিতা পাব।
Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana