শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন

সরকারি চাকরিজীবী পাত্র না পাওয়ায় তরুনীর ‘আত্মহত্যা’

সরকারি চাকরিজীবী পাত্র না পাওয়ায় তরুনীর ‘আত্মহত্যা’

প্রতীক ছবি

একুশে ডেস্ক:

নাম শিল্পী ঘোষ, গ্রামের সবাই তাকে ‘ভাল মেয়ে’ বলে চিনতেন। পড়াশোনা শেষের পর দীর্ঘদিন ধরেই তার জন্য পাত্রের খোঁজ চলছিল। বিয়ের জন্য মেয়ের একটিই ‘শর্ত’ ছিল— পাত্রকে সরকারি চাকরিজীবী হতে হবে! তবে ‘শর্তপূরণ’ না হওয়ায় কোনো পাত্রকেই পছন্দ হচ্ছিল না মেয়েটির।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গলায় ফাঁস লাগিয়ে সেই মেয়ে ‘আত্মহত্যা’ করেন বলে তার পরিবারের দাবি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়,সেই মেয়ে ভারতের মুর্শিদাবাদের কান্দিতে বাস করতেন।

প্রতিবেশীদের দাবি, সরকারি চাকরিজীবী পাত্র না মেলায় মানসিক অবসাদে আত্মহত্যা করেছেন শিল্পী।পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কান্দির খড়গ্রামের গুরুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা শিল্পী ঘোষের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা। তারাই খড়গ্রাম থানায় খবর দেন।

খবর পেয়ে পুলিশ শিল্পীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেন। এর পর স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে শিল্পীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা।

কান্দি মহকুমা হাসপাতাল মর্গে শিল্পীর দেহের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে খড়গ্রাম থানা।

শিল্পীর কাকা সঞ্জীব মণ্ডল বলেন, ‘স্নাতক স্তরের পড়াশোনা শেষ করার পর থেকেই শিল্পীর জন্য পাত্রের খোঁজ করছিলেন দাদা। তবে জমিজায়গা, টাকাপয়সা রয়েছে, এমন পাত্রদের দেখাশোনা করা হলেও সরকারি চাকরিজীবী পাত্র ছাড়া বিয়েতে রাজি হয়নি শিল্পী।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2021
Design By Rana